রাজনীতি

33views

সরকার পতনের একদফা দাবি নিয়ে আন্দোলনে থাকা বিএনপি ও দলটির সঙ্গীরা যুগপৎ কর্মসূচি পালন করে আসছে। এর বিপরীতে আওয়ামী লীগ কর্মসূচি দিলেও দলটির নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটকে রাজপথে সেভাবে সক্রিয় থাকতে দেখা যাচ্ছে না। সবশেষ আগামী ২৮ অক্টোবর রাজধানীতে মহাসমাবেশের ডাক দিয়েছে বিরোধীরা। একই দিনে পাল্টা সমাবেশ দিয়েছে আওয়ামী লীগ একাই। তবে মাঠে নেই ১৪ দলের শরিকরা। ২৮ অক্টোবর নিয়ে রাজনীতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলেও শরিকদের সঙ্গে এখন পর্যন্ত কোনও আলোচনা করেনি আওয়ামী লীগ। শরিক দলগুলো নির্বাচনমুখী তৎপরতায় ব্যস্ত থাকলেও নির্বাচন ঘনিয়ে আসায় জোটগত কর্মসূচি চান তারা। এমতাবস্থায় মঙ্গলবার (২৩ অক্টোবর) বিকাল ৩টায় ১৪ দলের বৈঠক ডাকা হয়েছে।

১৪ দলের শরিক কয়েকটি দলের শীর্ষ নেতারা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেছেন, সরকার পতনের একদফা নিয়ে বিএনপির সঙ্গে যুগপৎ আন্দোলন করছে সমমনা দলগুলো। তাদেরমোকাবিলায় মাঠে একাই নামছে আওয়ামী লীগ। শরিক দলগুলোর সঙ্গে কর্মসূচি নিয়ে কোনও আলোচনা হচ্ছে না, কোনও নির্দেশনাও আসছে না। সে কারণে শরিকরা নিজ নিজ দলের কর্মসূচি পালনের পাশাপাশি নির্বাচনমুখী তৎপরতায় ব্যস্ত থাকছে। তবে নির্বাচন সন্নিকটে চলে আসায় এখন অন্তত জোটগত কর্মসূচি নিয়ে মাঠে থাকতে চান নেতারা।

আগামী ২৮ অক্টোবর (শনিবার) রাজধানীতে মহাসমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি, যাতে দলটির যগপৎ সঙ্গী দলগুলোর অংশ নেওয়ার কথা জানানো হয়েছে। বিরোধী শিবিরে চলছে সে অনুযায়ী ব্যাপক প্রস্তুতিও। একই দিনে বায়তুল মোকাররম মসজিদের দক্ষিণ গেটে ‘শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশ’ করার ঘোষণা দিয়েছে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। এতে ১৪ দলের শরিক দলগুলোর যোগ দেওয়া নিয়ে এখন পর্যন্ত আলোচনা না হলেও আওয়ামী লীগ নিজেদের নেতাকর্মীদের সতর্ক অবস্থানে থাকার নির্দেশ দিয়েছে।

 

তথ্যসূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

Leave a Reply